ঘরের পর্দা , সোফার ঢাকনা , ঘর সাজাতে হয় অনেক ব্যাবহার । নীচু থেকে তুলে এনে জীবনের সামান্য উপহার ,

 

Story and Article

আমার স্বদেশ

সুদীপ চক্রবর্তী

শিশির সিক্ত ঘাস ভেবেছিল তার আর দহন হবেনা ,
অল্পতেই ভুল ভেঙ্গে বুঝলো সবটাই কল্পনা ।
বৃষ্টি এবং অতি বৃষ্টি আরও বিপদ ও যন্ত্রনা ,
ডুবে পচে শ্বাস কষ্টে মরতে হয় ,
সে আর এক বিড়াম্বনা ।
আমাদের ইতর চিন্তায় নীচুরা নীচুতে থাকবে ,
ওপরে এলেই তাদের বিপদ সমূহ বাড়বে ।
তাই থাকতে হবে নীচুতে দয়া দাক্ষিন্য আর খয়রাতে ,
কিন্তু কোনো পরিবর্তন হয়নি তা নয় ,
কোথাও কোথাও অন্য ব্যাবহারও করা হয় ,
ঘরের পর্দা , সোফার ঢাকনা , ঘর সাজাতে হয় অনেক ব্যাবহার ।
নীচু থেকে তুলে এনে জীবনের সামান্য উপহার ,
রঘুরাজ রাজবশীও তাই ভেবেছিল ,
এতোদিনে সমাজের কিছুটা পরিবর্তন সমাজ নেতারা এনেছে নিশ্চই ,
মোটা মাইনের চাকরি ছেড়ে ফিরে আসার একমাত্র প্রত্যয়।
দেশে মানুষ গড়বে ,
এক নতুন দিনের ইতিহাস তৈরী করবে ,
উপাচার্যের ঘরে ঢোকার পর অভিজ্ঞতা হলো অন্য ,
বুঝলো ইতর চিন্তা ইতরদের মাথায় এখনও আছে ,
প্রথম আদেশ ,
বিদেশিদের অনেক প্রশংসা থাকলেও এখানকার প্রশংসা কুড়োতে হবে ।
তবেই চাকুরী পাকা হবে ,
তুমি ঐ পিছনের টুলে গিয়ে বসো ,
সামনেতো সব চেয়ার খালি আছে ?
আমরা এখানে বর্নাশ্রম মানি ,
তাই শূদ্ররা থাকবেনা ব্রাহ্মনদের পাশে ।
এ দেশে ঐটাই তোমার স্থান ,
এতে হয়না তোমাদের অপমান ।
তোমার নিয়োগপত্র পেতে সময় লাগবে ,
ততদিন অপেক্ষা করতে হবে ।
তারপর মাইনে পাবে ,
এখন চালিয়ে যাও ,
তোমার ভাগ্য ভালো এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াবার সুযোগ পাও ।
কি হলো ? চুপচাপ দাঁড়িয়ে রইলে কেন ? বসার স্থানতো বলেদিলাম ,
না সেটা কোনো ব্যাপার নয় ,
আমি চললাম ,
ইতর চিন্তা থেকে ফিরে যাওয়াই শ্রেয়: ।
আমি আপনার থেকে পনেরোগুন বেশি মাইনে পাই ,
অনেক বেশি সম্মান ও সুবিধা ,
সেটা বড় কথা নয় ,
আমি এসেছিলাম দেশের মানুষ গড়তে ,
তাতে আত্মত্যাগ করতে হয় ,
আপনারাই বেছে দিলেন আত্মহত্যার পথ ।
ফিরে যাচ্ছি ,
আমি আসবো একদিন নিশ্চয়ই ,
নতুন মানুষ নিয়ে করবো নতুন শপথ ।