সবার আব্দার, মেটাতে তার হিমসিম, মাথা যায় চুলকিয়ে।

 

"পরিবারের বিধাতা"           - অরবিন্দ সরকার


"পরিবারের বিধাতা"

- অরবিন্দ সরকার,
বহরমপুর, মুর্শিদাবাদ।

পরিবারের দায় দায়িত্বের বোঝা মাথায় নিয়ে, সকাল থেকে রাত্রি বিরামহীন পরিশ্রম দিয়ে, সন্তান সন্ততি স্ত্রী বৃদ্ধ মা বাবা থাকে তাঁর মুখ চেয়ে, তিনি হলেন ন্যুব্জ ক্রীতদাস বাবা! চলেন সময় বেয়ে। বিনি তেলে চান,থান পরিধান, গোগ্রাসে বাসি খেয়ে, সবার আব্দার, মেটাতে তার হিমসিম, মাথা যায় চুলকিয়ে। রোগ শোক জলাঞ্জলি, হ্যাঁ বা না সব কিছু নেন মানিয়ে, কাঁদার অধিকার নেই তাঁর,ঘরের হাসি ফোটাতে গিয়ে। বাবার ভাগীদার কেউ নেই আর,তাই তিনি এগিয়ে, মড়ার সময় নেই, বাঁচার আশা নেই, চলেন শিবের গীত গেয়ে। নিঃশব্দে পদার্পণ, কথাবার্তা চুপিসারে, দরজা ভেজিয়ে, পাছে কারো ঘুমের ব্যাঘাত না ঘটে, বারান্দায় দেহ নেন জিরিয়ে। বহু জনমের পাপ,তাই তিনি বাপ্, পরিশ্রম গতর খাটিয়ে, মাথার বোঝা হালকা হবে, যেদিন পড়ে রবে একেবারে শ্মশানেতে গিয়ে।